নীলাকাশ টুডেঃ সেদিন ছিল ‘ডোন্ট লাভ মি বিচ’। আর আজ চিত্রনায়িকা পরীমণির হাতে দেখা গেল নতুন লেখা। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় পরীমণি বুধবার বেলা ১১টার দিকে আদালতে আসেন। আদালত থেকে বের হয়ে সবার উদ্দেশে হাত নাড়েন পরীমণি।

তখনই তার ডান হাতের তালুতে নতুন লেখা দেখা গেছে।
এর আগে জামিনে কারামুক্ত হওয়ার সময় ‘ডোন্ট লাভ মি বিচ’ লেখে আলোচিত হন পরী। সেদিন পরীমণি বলেছিলেন, ‘যারা বিচ তাদের উদ্দেশ্যে এমন কথা বলেছি। ’

আর আজকের লেখা প্রসঙ্গে পরীমণি বলেন, ‌‘কী লিখেছি আপনারা বুঝে নেন। আর এর মাধ্যমে আমি বোঝাতে চাচ্ছি, শেষ পর্যন্ত লড়াই করতে চাই। এত সহজে হাল ছাড়ার মতো লোক নই আমি। যাই হোক না কেন এখানেই আমাকে দমাতে পারবে না। মনে করুন, সেই সব প্রতিবাদী মনোভাব আজকের সিম্বলের মাধ্যমে বুঝিয়ে দিয়েছি।

 

এটা ছিল মেটাফোর। ’
উল্লেখ্য, গত ৪ আগস্ট রাজধানীর বনানীর বাসা থেকে পরীমণিকে গ্রেফতার করা হয়। মাদক মামলায় ২৭ দিন কারাভোগের পর গত ১ সেপ্টেম্বর কারাগার থেকে জামিনে মুক্ত হন পরীমণি।

আগামী ১০ অক্টোবর পরীকে আবার হাজির হতে হবে বিচারিক আদালতে। ঢাকার মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদার বুধবার পরীমণির পরবর্তী হাজিরার এ তারিখ ঠিক করেন।

আরও পড়ুন

টিকটকে প্রেম, বুড়ীর সঙ্গে নতুন তরুণের বিয়ে

নীলাকাশ টুডেঃ টিকটকে প্রেম থেকে ৬১ বছরের আমেরিকান নারীকে বিয়ে করেছেন ২৪ বছরের এক তরুণ। অসম সম্পর্কের এই বিয়েতে বর-বধূর বয়সের পার্থক্য ৩৭ বছর। জানা গেছে, ওই বৃদ্ধা নারীর সাত সন্তান রয়েছে। তার নাতি-নাতনির সংখ্যা ১৭ জন, আর স্বামী সেই নাতিদের একজনের বন্ধু।

খবর ডেইলি মেইলের।
সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, বরের নাম কুরান ম্যাকেইন। কনের নাম শেরিল ম্যাকগ্রেগর। কুরানের বয়স যখন মাত্র ১৫ বছর, তখন শেরিলের সঙ্গে তার প্রথম সাক্ষাৎ হয়। শেরিলের এক ছেলের রেস্টুরেন্টে কাজ করতেন কুরান। শেরিলকে একটি দোকানে ক্যাশিয়ারের চেয়ারে দেখেন কুরান, তখন পূর্বপরিচয়ের সূত্রে তাদের মধ্যে ফের আলাপ হয়।

কথাবার্তার একপর্যায়ে কুরান জানতে পারেন, শেরিল নিয়মিত টিকটক ভিডিও বানান। একটি ভিডিওতে নিজের নাচের দৃশ্য আপলোড করেছিলেন তিনি।

সেখানে অনেকেই বাজে মন্তব্য করেছেন, এ নিয়ে মন খারাপ তার। তখন শেরিলকে সান্ত্বনা দেন কুরান। পরে একসঙ্গে টিকটক ভিডিও বানানো শুরু করেন তারা। এর মাধ্যমে একে অপরের ঘনিষ্ঠ হয়ে ওঠেন কুরান-শেরিল, ফুটতে থাকে তাদের প্রেমের ফুল।
গত ৩১ জুলাই আংটি পরানোর মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে যুগলে পরিণত হন অসম বয়সের এ প্রেমিক-প্রেমিকা।

তার মধুর সমাপ্তি হয়েছে গত ৩ সেপ্টেম্বর। সেদিন টিকটকের একটি বিশেষ অ্যাকাউন্ট থেকে লাইভ দেখানো হয়েছে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান।