নীলাকাশ টুডেঃ সন্তানের কাছে আশ্রয় হয়নি, ছাগলের সাথে খুপড়ি ঘরে থাকেন মা’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করা হলে দৃষ্টিগোচর হয় সাতক্ষীরার তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ তারিফ উল-হাসান’র। এরপর তিনি রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে মনোয়ারা বর্তমান ঠিকানা সাতক্ষীরার তালা সদরের বারুইহাটিস্থ প্রতিবেশী দেবরের ছাগলের সঙ্গে খুপড়ি ঘরে থাকা ষাটোর্ধ অসুস্থ বৃদ্ধা মাকে দেখতে যান।

এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার তারিফ বৃদ্ধার মায়ের সঙ্গে কথা বলে শারীরিক- মানসিকসহ সার্বিক অবসস্থার খোঁজ খবর নেন। তিনি বৃদ্ধাকে নগদ ১ হাজার টাকা, ১০ কেজি চাল, ১ কেজি তেল, ১ কেজি লবণ, ২ কেজি আলু ও ১ কেজি ডাল দেন। তাৎক্ষণিক তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: রাজিজব সরদারকে বৃদ্ধা মনোয়ারাকে ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদানের নির্দেশ দেন। এছাড়া পরে তার ঘর সংস্কারের জন্য প্রয়োজনীয় টিন, নগদ ৩ হাজার টাকা সহায়তা প্রদান করা হবে বলেও জানান তিনি।
বৃদ্ধা মনোয়ারা সরকারি আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর নিতে না চাওয়ায় তাকে আজীবন প্রতিবেশী দেবরের জায়গায় থাকার বন্দোবস্ত করেন এবং ওই ঘর সংস্কারের জন্য নগদ টাকা ও উপকরণ প্রদানের ঘোষণা দেন। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সঙ্গে ছিলেন তালা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ ওবায়দুল হক ও মোঃ মনিরুজ্জামান প্রমুখ।

এর আগে সাংবাদিকরা বৃদ্ধা মনোয়ারাকে নিয়ে একটি তথ্যবহুল প্রতিবেদন প্রকাশ করে। যেখানে উঠে আসে তার যাপিত জীবনের করুণ চিত্র। প্রতিবেদনের তথ্য নেওয়ার সময় ওই বৃদ্ধা মাথা গোঁজার ঠাঁই নয়, বাকি জীবন তাকে যেন দু’বেলা দু’ মুঠো খাবার ও একটু চিকিৎসার আবদার করেন।

তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার তারিফ উল হাসান বলেছেন, একজন অসহায় বৃদ্ধা মায়ের জন্য সরকারের পক্ষে কিছু করতে পারছেন এটাও তার জন্য বড় প্রাপ্তি। ভবিষ্যতেও তিনি মনোয়ারাদের খোঁজ-খবর ও সরকারের পক্ষে সহায়তার আশ্বাস দেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের এই মানবিক উদ্যোগে সাধারণ মানুষের মুখে মুখে খুশির জোয়ার বইছে। তালা উপজেলার সচেতন মহল বলছে আমাদের এলাকায় ইউএনও বা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তারিফ উল-হাসান দীর্ঘদিন সেবা দিতে পারেন সেই দোয়াও করতে দেখা গেছে।