শিশু রোহিতকে হত্যার দ্বায় স্বীকার করে যা বললো মা


MD Nuruzzaman প্রকাশের সময় : মার্চ ১৭, ২০২৩, ৩:৩৫ অপরাহ্ন /
শিশু রোহিতকে হত্যার দ্বায় স্বীকার করে যা বললো মা

 

 

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে জুস খেয়ে রোহিত দত্ত (১০) নামের এক শিশুর মৃত্যু খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় নিহত শিশুর মা সুমিতা দত্তকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১৭ মার্চ) দুপুর ২টার দিকে শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন স্থানীয় হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক।

নিহত রোহিত নকিপুর গ্রামের মৃত. গোপাল দত্তের ছেলে। সে নকিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

নিহতের কাকা উজ্জল দত্ত জানিয়েছেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী পালনের জন্য সকালে স্কুলে গিয়েছিল রোহিত। সেখান থেকে বাড়িতে ফিরে রোহিত তার মাকে বলেছিল, রাস্তা থেকে কেউ তাকে জুস খাইয়েছে। এরপর থেকেই পেটে জ্বালাপোড়া করছে। এরপর ধীরে ধীরে তার অবস্থার অবনতি হয় ও এক পর্যায়ে সে অচেতন হয়ে পড়ে। এ সময় তার শরীরের রং বদলাতে শুরু করে। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক রোহিতকে মৃত ঘোষণা করেন।

শ্যামনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক শাকিল হোসেন জানান, হাসপাতালে পোঁছানোর আগেই শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে যে বিষক্রিয়ায় তার মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

এ প্রসঙ্গে শ্যামনগর থানার ওসি মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম বাদল নীলাকাশ টুডেকে বলেন, পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে মৃত শিশুটির মা সুমিতা দত্ত স্বীকার করেছে যে জুসের সঙ্গে বিষ খাইয়ে তিনি তার ছেলেকে হত্যা করেছে,। তিনি বলেছেন, ছেলের চাহিদা পূরণ করতে না পারা, ইচ্ছেমত চলাফেরা করতে না পারায় তিনি এ কাণ্ড ঘটিয়েছেন। তবে, তার এসব কথা যুক্তিসঙ্গত মনে হয়নি। হত্যাকাণ্ডের পেছনে অন্য কোনো কারণ আছে কি না সেটি জানতে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে এখনও তাদের পরিবারের কেউ এ ব্যাপারে থানায় কোনো অভিযোগ বা মামলা দায়ের করেননি বলে জানান তিনি।