নীলাকাশ টুডেঃ নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলায় রাস্তার পাশ থেকে পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় এক নবজাতকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার মহাদেবপুর -বেলঘরিয়া সড়কের পাশ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

এলাকাবাসী ও মহাদেবপুর থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাস্তার পাশে একটি পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় কিছু পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসীর সন্দেহ হয়। পরে উৎসুক লোকজন কাছে গিয়ে সেখানে নবজাতকের লাশ থাকার বিষয়ে সন্দেহ করেন।

খবর পেয়ে মহাদেবপুর নওহাটা ফাঁড়ি পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এরপর পলিথিন খুলে নবজাতকের লাশ দেখতে পায় তারা। ধারণা করা হচ্ছে, দু এক দিন আগে লাশটি ফেলে রাখা হয়।

মহাদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজম উদ্দিন মাহমুদ বলেন, রাস্তার পাশে একটি পলিথিনে নবজাতকের লাশটি দেখতে পেয়ে পথচারীরা পুলিশে খবর দেন। পরে লাশটি উদ্ধার করা হয়। কে বা কারা লাশটি ফেলে গেছে, তা জানা যায়নি। এ বিষয়ে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

ওসি আজম উদ্দিন আরও বলেন, লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন

নতুন প্রেমিক খুঁজছেন মিয়া খলিফা!

 

নীলাকাশ টুডেঃ প্রেমিক খুঁজছেন মিয়া খলিফা! সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার ও স্পোর্টস ব্রডকাস্টার হিসেবে পরিচিত সাবেক এ পর্ন তারকা বিচ্ছেদের পর এখন আছেন নতুন প্রেমিকের সন্ধানে, এমন গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে ইন্টারনেটে। এর আগে ২০১৯ সালে এক সুইডিশ শেফের সাথে আংটি বদল করেছিলেন মিয়া। গত বছরের জুনে তাদের বিয়ে হওয়ার কথা থাকলেও লকডাউনের কারণে তা ভেস্তে যায়। চলতি বছরের জুলাইয়ে নিজেদের বিচ্ছেদের কথা জানিয়েছিলেন মিয়া।

বিয়ে ভাঙার পর বেশ কিছুদিন হতাশ ছিলেন মিয়া খলিফা। তবে হতাশাকে দীর্ঘ না করে তিনি চান, নতুন করে জীবন শুরু করতো।

এদিকে জানা গেছে মিয়া খলিফাকে খুশি করতে নানাভাবে চেষ্টা করছেন অনেকেই। সম্প্রতি এক ট্যাটু আর্টিস্ট মিয়া খলিফার ছবি ট্যাটু করিয়েছেন নিজের পায়েই। ট্যাটু আর্টিস্ট ০১ নামক একটি ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে ওই ভিডিও পোস্ট করেছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, সেই ট্যাটু শিল্পী দিল্লির বাসিন্দা এবং মিয়ার প্রতি ভালবাসা ব্যক্ত করতেই এ কাজ করেছেন তিনি।