মাঝরাতে পিৎজা নিয়ে প্রেমিকার বাসায়, বাপকে দেখে পালাতে গিয়ে কার্নিশ থেকে পড়ে প্রেমিকের মৃত্যু


MD Nuruzzaman প্রকাশের সময় : অগাস্ট ৯, ২০২৩, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন /
মাঝরাতে পিৎজা নিয়ে প্রেমিকার বাসায়, বাপকে দেখে পালাতে গিয়ে কার্নিশ থেকে পড়ে প্রেমিকের মৃত্যু

ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের রাজধানী হায়দরাবাদে দারুণ এক প্রেমপূর্ণ ঘটনার করুণ সমাপ্তি হয়েছে। মাঝরাতে প্রেমিকার শখ পূর্ণ করতে গিয়ে তাঁর বাসায় হাজির হয়ে প্রেমিকার বাবাকে দেখে পালাতে গিয়ে নিচ পড়ে করুণ মৃত্যু হয়েছে এক তরুণের। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

মানুষ ভালোবাসার জন্য কি না করে! আসমান থেকে চাঁদ এনে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি তো মানুষ হামেশাই দিয়ে থাকে। সেখানে প্রেমিকা মাঝরাতে পিৎজা খেতে চাইলে প্রেমিক তা পূর্ণ করবে না, তা কী করে হয়! শখ পূর্ণ করতেই পিৎজা নিয়ে শোয়াইব (২০) নামের এক তরুণ হাজির হয়েছিলেন প্রেমিকার বাসায়। এ পর্যন্ত সব ঠিকই ছিল। কিন্তু প্রেমিকার বাসায় তাঁর বাবাকে দেখার পরই বাঁধে গোল। পালাতে গিয়ে বাসার কার্নিশ থেকে নিচে পড়ে গিয়ে মারা যান শোয়াইব।

ঘটনাটি ঘটেছে গত রোববার ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের রাজধানী হায়দরাবাদের বড়দানা এলাকায়।

স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, ২০ বছর বয়সী শোয়েব তাঁর প্রেমিকার বিল্ডিংয়ের বারান্দায় হাজির হয়েছিলেন পিৎজা নিয়ে। প্রেমিকার সঙ্গে ভালোই অভিসার চলছিল। হঠাৎ তাঁরা দুজনেই শুনতে পান সিঁড়ি দিয়ে কেউ উঠে আসছে। তাঁরা ধারণা করেছিলেন, প্রমিকার বাবা সিঁড়ি দিয়ে উঠে আসছেন। চমকে উঠে পালাতে গিয়ে শোয়েব ছাদের কিনারায় দৌড়ে যান এবং কিছু ঝুলন্ত তারের সাহায্য নিয়ে নিচে নামার চেষ্টা করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, নামার সময় পড়ে গিয়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পান শোয়াইব। তিনি ভবনটির চতুর্থ তলা থেকে পড়ে গিয়েছিলেন এবং তিনি মূলত মাথায় লাগা চোটের কারণেই মারা যান। পুলিশ আরও জানিয়েছে, রাত ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরপর শোয়াইবকে স্থানীয় ওসমানিয়া হাসপাতালে নেওয়া হলেও তাঁকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। ভোর সাড়ে ৫টার দিকে তাঁর মৃত্যু হয়।

শোয়াইবের বাবা এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেছেন। তবে এ ঘটনায় এখনো কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।