নীলাকাশ টুডেঃ জার্মানির পশ্চিমাঞ্চলে ভারি বৃষ্টিপাত ও বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০ জনে। নিহতদের বেশিরভাগই নর্থ রাইন-ওয়েস্টফেলিয়া ও রাইনল্যান্ড-পালাটিনেট রাজ্যের বাসিন্দা।

বৃহস্পতিবার জার্মান পুলিশ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। প্রবল বৃষ্টিপাতের জেরে জার্মানির পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য রাইনল্যান্ড-পালাটিনেটে ছয়টি বাড়ি ভেঙে পড়ার পর অন্তত ৩০ জন নিখোঁজ রয়েছেন। এছাড়া শল্ড অঞ্চলের আরও ২৫টি বাড়ি যে কোনো সময় ভেঙে পড়ার ঝুঁকিতে রয়েছে।

কবলেনজ পুলিশের মুখপাত্র বলেন, বাড়ির ছাদ থেকে উদ্ধার করতে হবে, এমন লোকের সংখ্যা সম্পর্কে আমরা এখনো নিশ্চিত নই।

তবে খবরে বলা হচ্ছে, বন্যার কারণে অন্তত অর্ধশত লোক ছাদের ওপর আটকা পড়েছেন। উদ্ধার তৎপরতা এখনো চলছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

এদিকে বন্যার্তদের উদ্ধার কাজে অংশ নেওয়া দুই কর্মী মারা গেছেন। বুধবার দায়িত্ব পালনকালে নর্থ রাইন-ওয়েস্টফেলিয়ার অ্যাল্টেনা ও উইডল শহরে ওই দুজন প্রাণ হারান বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন

নুরনগরে ঈদুল আযহা উপলক্ষে পুলিশের টহল

সাতক্ষীরার শ্যামনগর থানা অফিসার ইনচার্জ আলহাজ্ব মোঃ নাজমুল হুদা এর নির্দেশনা অনুযায়ী ঈদুল আজহা উপলক্ষে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নুরনগরে থানা পুলিশের নিয়মিত টহল দিতে দেখা গেছে।

নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান ও শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ আলহাজ্ব মোঃ নাজমুল হুদা এর নেতৃত্বে এস আই আবু বক্কার শেখ, সহকারী বিট অফিসার এস আই মনিরুল ইসলাম, এ এস আই মারুফ কবির, কনস্টবল শামিম আহমেদ, টহলে ছিলেন। এসময় নুরনগর ইউনিয়ন আ”লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম সোহেল রানাও উপস্থিত ছিলেন।