আঃ জলিল, স্টাফ রিপোর্টার, যশোরঃ যশোরের বেনাপোল সীমান্ত থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ১৮ পিচ স্বর্ণের বার (২ কেজি ১০০ গ্রাম ওজনের) ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা।

মঙ্গলবার ( ২৭ সেপ্টেম্বর) রাতে বেনাপোল পোর্ট থানার মালিপুতা গ্রাম থেকে এ স্বর্ণের চালানটি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল শাহেদ মিনহাজ সিদ্দিকী জানান, ভারতে পাচারের উদ্দেশ্য বিপুল পরিমাণ স্বর্ণের একটি চালান মোটরসাইকেল যোগে যশোর বেনাপোল দিয়ে সীমান্ত এলাকায় যাচ্ছে।
এমন খবরে, যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের আমড়াখালি বিজিবি পোস্ট এলাকায় নজরদারি বাড়ানো হয়। এসময় পোস্ট এলাকায় এক মোটরসাইকেল আরোহীকে গতিরোধ করতে সংকেত দিলে সে মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে, বিজিবি সদস্যরা তাকে ধাওয়া করলে সে বেনাপোল সীমান্তের মালিপুতা এলাকায় মোটরসাইকেল ফেলে গ্রামের মধ্যে পালিয়ে যায়।

এসময় মোটরসাইকেল তল্লাশি করে ১৮ পিচ স্বর্ণ বার (২ কেজি ১০০ গ্রাম ওজনের) উদ্ধার করা হয়।
যার আনুমানিক বাজার মূল্য ১ কোটি ৬৮ লাখ টাকা বলে তিনি জানান।

এদিকে বেনাপোল সীমান্ত এলাকা থেকে প্রাইভেট কারের মধ্যে থেকে ১ কেজি ৬০ গ্রাম ওজনের বড় ১ পিচ স্বর্ণ বারসহ দুই যুবকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবি সদস্যরা।

মঙ্গলবার ( ২৭ সেপ্টেম্বর) রাতে বেনাপোল পোর্ট থানাধীন পুটখালি এলাকা থেকে এ স্বর্ণের চালান আটক করা হয়। আটককৃত আসামিরা হলেন, বেনাপোল পৌর এলাকার ছোট আঁচড়া গ্রামের ইসমাইল সর্দারের ছেলে আঁশা(২৮) ও একই এলাকার নামাজ গ্রামের মৃত কালাম হোসেনের ছেলে সোহানুর রহমান বিশাল(২৭)।

খুলনা ২১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল তানভীর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি একটি প্রাইভেট কারে করে ভারতে পাচারের উদ্দেশ্য বিপুল পরিমাণ স্বর্ণের একটি চালান পুটখালি সীমান্ত দিয়ে যাবে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুটখালি গ্রামের মসজিদ বাড়ি বিজিবি পোস্টে অভিযান চালিয়ে সন্দেহ ভাজন একটি প্রাইভেট কার গতি রোধ করা হয়। এসময় প্রাইভেট কারটি তল্লাশি চালিয়ে পেছনের ছিটের পাশের মধ্যে লুকিয়ে রাখা ১ কেজি ৬০ গ্রাম ওজনের ১ পিচ বড় স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়।

এসময় প্রাইভেট কারসহ দুই জনকে আটক করা হয়। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের আনুমানিক বাজার মূল্য ৭৪ লাখ ৪৪ হাজার টাকা। এবং আটককৃত আসামিদের বিরুদ্ধে স্বর্ণ চোরাচালান আইনে মামলা দিয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হবে বলে তিনি জাননা।

তিনি আরো জানান, আসন্ন দূর্গাপুজা উপলক্ষে ভারতে যাতে কোন স্বর্ণ যেতে না পারে সে জন্য সীমান্ত এলাকা গুলোতে কঠোর নজরদারিতে রাখা হয়েছে। যার ভিত্তিতে গত তিন দিনে ৩ কেজি ৯৬৯ গ্রাম স্বর্ণ সহ চার জনকে আটক করা হয়। উল্লেখ্য আজ দুপুরের ২১ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অভিযান চালিয়ে ইউরিয়া সারের মধ্যে থেকে ১ কেজি ২৩৩ গ্রাম স্বর্ণ আটক করা হয়েছে।