সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:০৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
সাতক্ষীরায় একজনের ফাঁসি শ্যামনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় অফিসার সহ আহত ৩ সাতক্ষীরায় ট্রাকের ধাক্কায় গৃহবধূ নিহত হিরো আলমকে তথ্যমন্ত্রীর অভিনন্দন তাদেরকে হেদায়েত কর, না হলে মাটিতে মিশিয়ে দাও! শ্যামনগরে হরিণের মাংস সহ ডিঙ্গি নৌকা আটক বেনাপোলে ফেনসিডিল সহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক ওয়াজ মাহফিলে দাওয়াত না পেয়ে আ.লীগের দু’পক্ষের বাড়িঘর ভাঙচুর হত্যা মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা গ্রাহকদের কাছ থেকে দাম বেশি নিয়ে ডাকাতি করছেন গ্যাস ব্যবসায়ীরা! স্ত্রীকে কুপ্রস্তাব, ব্যবসায়ীকে বাসায় ডেকে শেষ করলেন স্বামী ঢাকায় ‘ছোঁ পার্টির’ ১৬ জন গ্রেফতার স্বর্ণের দাম কমল ভরিতে যত বাংলাদেশ ও পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক ফেসবুক লাইভে এসে যা বললেন হিরো আলম

ফ্রিল্যান্স কাজের জন্য অর্থ জামানত, ঠিক না প্রতারণা

রিপোর্টারের নাম
আপডেট বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ২:৪৪ পূর্বাহ্ন

 

নীলাকাশ টুডেঃ ঘরে বসে বিদেশের তথ্যপ্রযুক্তির নানা কাজ করে আয় করেন ফ্রিল্যান্সার বা মুক্ত পেশাজীবীরা। তাই ফ্রিল্যান্সিং করাকে পুরোদস্তুর পেশা হিসেবে নিয়েছেন অনেকেই। সফলও হচ্ছেন তাঁরা। তাঁদের সাফল্য দেখে অনেকেই সরকারি বা বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে ফ্রিল্যান্স মার্কেট প্লেসে কাজ খুঁজে থাকেন। তবে নতুনদের অনেকেই না জেনে ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে বিভিন্ন ক্লায়েন্টের মাধ্যমে প্রতারণার শিকার হয়ে থাকেন।

 

নতুন ফ্রিল্যান্সারদের অনেকেরই নির্দিষ্ট কাজে দক্ষতা না থাকায় টাইপের কাজ করে দ্রুত আয় করতে চান। আর তাঁদের এই দুর্বলতার সুযোগ নেন মার্কেটপ্লেসে থাকা অনেক ক্লায়েন্ট। কাজ দেওয়ার নামে বেশ কিছু শর্তও দেন তাঁরা, যার মধ্যে অর্থ জামানত রাখা অন্যতম। ১০ থেকে ২০০ ডলার জমা রাখলেই পৃষ্ঠাপ্রতি ৮০ ডলার পর্যন্ত পারিশ্রমিক দেওয়ার প্রলোভন দেখান তাঁরা। ফলে নতুন ফ্রিল্যান্সাররা হন্যে হয়ে চেষ্টা করেন কীভাবে জামানতের অর্থ পাঠানো যায়। এখানেই সব থেকে বড় ভুল করেন নতুন ফ্রিল্যান্সরা। কারণ, ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে টাকা জামানত রাখা বেশির ভাগ মানুষ প্রতারণার শিকার হন। বিষয়টি জানা থাকায় এসব ক্লায়েন্টকে এড়িয়ে চলেন মার্কেটপ্লেসে দীর্ঘদিন কাজ করা ফ্রিল্যান্সাররা। তবে নতুনেরা দ্রুত আয় করার আশায় প্রতারকদের দেওয়া ফাঁদে পা দেন।

মনে রাখতে হবে ভালো ক্লায়েন্টরা সব সময় ভালো মানের কাজ চান। এ জন্য তাঁরা আপনার যোগ্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হতে বিভিন্ন কাজের নমুনা পরীক্ষা করেন। দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা যাচাই করেই কাজ দেন তাঁরা। কখনোই ফ্রিল্যান্সারদের অর্থ জামানত রাখতে বলেন না। তাই ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে নিরাপদ থাকতে ক্লায়েন্ট কোন ধরনের কাজ আপনাকে দিয়ে করাতে চাইছেন বা তাঁর শর্ত সম্পর্কে আগে থেকেই ভালোভাবে জানতে হবে।

ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে নিরাপদ থাকতে যা জানতে হবে:
কোনো অবস্থাতেই ক্লায়েন্টের সঙ্গে মার্কেটপ্লেসের বাইরে যোগাযোগ করা যাবে না (নতুনদের জন্য)।

মার্কেটপ্লেসে কাজ করার জন্য কোনো ধরনের জামানত দিতে হয় না।

টাইপ করার কাজ এড়িয়ে চলা।

ক্লায়েন্টের পেমেন্ট অপশন মার্কেটপ্লেসে যাচাই করা আছে কি না, তা পরীক্ষা করা।

মার্কেটপ্লেসে ক্লায়েন্টের কাজ দেওয়ার ইতিহাস যাচাই করা।


এই বিভাগের আরো খবর