নীলাকাশ টুডেঃ পিকনিকের গাড়ি থেকে নামিয়ে এক গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়েছে। পিকনিকের সময়কার বাকবিতণ্ডার জেরে ফেরার পথে গাড়ি থামিয়ে ওই গৃহবধূকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস রোববার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ইংরেজি নববর্ষের প্রথম দিনে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ঘটকপুকুর এলাকা অন্তত ২৫ জনের একটি দল পার্শ্ববর্তী টাকি এলাকায় পিকনিকে গিয়েছিলেন। সেখানে স্থানীয় কয়েকজন যুবকের সঙ্গে ওই পিকনিক দলের সদস্যদের কথা কাটাকাটি হয়। এ নিয়ে দু’পক্ষের অন্তত তিনটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়।

তবে স্থানীয় নেতাদের মধ্যস্থতায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

কিন্তু ওই ঘটনার জেরে পিকনিক থেকে ফেরার সময় কলকাতা-বাসন্তী হাইওয়ের মিনাখাঁর কাছে বেশ কয়েকজন যুবক ঘটকপুরগামী গাড়িটিকে থামায়। ঘটকপুকুর থেকে পিকনিক করতে আসা এক গৃহবধূকে জোর করে গাড়ি থেকে নামানো হয়। তাকে পার্শ্ববর্তী এলাকায় নিয়ে গণধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা নির্মল দাস গণধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এই ঘটনায় অভিযুক্ত ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।