সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:২০ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
সাতক্ষীরায় একজনের ফাঁসি শ্যামনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় অফিসার সহ আহত ৩ সাতক্ষীরায় ট্রাকের ধাক্কায় গৃহবধূ নিহত হিরো আলমকে তথ্যমন্ত্রীর অভিনন্দন তাদেরকে হেদায়েত কর, না হলে মাটিতে মিশিয়ে দাও! শ্যামনগরে হরিণের মাংস সহ ডিঙ্গি নৌকা আটক বেনাপোলে ফেনসিডিল সহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক ওয়াজ মাহফিলে দাওয়াত না পেয়ে আ.লীগের দু’পক্ষের বাড়িঘর ভাঙচুর হত্যা মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা গ্রাহকদের কাছ থেকে দাম বেশি নিয়ে ডাকাতি করছেন গ্যাস ব্যবসায়ীরা! স্ত্রীকে কুপ্রস্তাব, ব্যবসায়ীকে বাসায় ডেকে শেষ করলেন স্বামী ঢাকায় ‘ছোঁ পার্টির’ ১৬ জন গ্রেফতার স্বর্ণের দাম কমল ভরিতে যত বাংলাদেশ ও পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক ফেসবুক লাইভে এসে যা বললেন হিরো আলম

পাড়া-মহল্লায় সতর্ক পাহারা, আগে ভাগেই মাঠে আওয়ামী লীগ

রিপোর্টারের নাম
আপডেট বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২২, ৫:৩১ পূর্বাহ্ন

 

নীলাকাশ টুডেঃ বিএনপির ১০ ডিসেম্বরের গণসমাবেশ সামনে রেখে আগেভাগেই মাঠে নেমেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

ইতোমধ্যে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের প্রতিটি থানা-ওয়ার্ডে সতর্ক পাহারায় থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

একই নির্দেশনা রয়েছে সহযোগী সংগঠনগুলোয়ও। এরই অংশ হিসাবে রাজধানীর পাড়া-মহল্লাসহ বিভিন্ন স্থানে দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মহড়া দিতে শুরু করেছে। বুধবার সকাল থেকেই বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে নেতাকর্মীদের ভিড় ছিল। এছাড়া এদিন মিছিল দেখা গেছে যাত্রবাড়ী, পল্টন, কল্যাণপুর, ভূতের গলি, হাতিরপুল ও রাসেল স্কয়ারসহ বিভিন্ন এলাকায়। নয়াপল্টন থেকে মতিঝিল পর্যন্ত রাস্তায় ছিল আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, প্রতিটি থানা-ওয়ার্ডে তাদের নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বিএনপি আবারও অগ্নিসন্ত্রাস ও অরাজকতার পথে হাঁটা শুরু করেছে। আমরা এর বিরুদ্ধে মাঠে আছি। কাল-পরশুও (বৃহস্পতি ও শুক্রবার) থাকব। ১০ ডিসেম্বরও আমাদের নেতাকর্মীরা সতর্ক অবস্থায় থাকবেন। তিনি আরও বলেন, প্রতিটি থানা-ওয়ার্ডে নেতাকর্মীদের ইতোমধ্যে এ বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

একই বিষয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হুমায়ুন কবির বলেন, ঢাকা দক্ষিণের প্রতিটি থানা-ওয়ার্ডে আমাদের নেতাকর্মীদের সতর্ক পাহারায় থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বিএনপি-জামায়াত যেন কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা বা অরাজকতা করতে না পারে, সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরাও সতর্ক রয়েছেন।

জানা গেছে, বুধবার রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে মিছিল, স্লোগান দিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মোড়ে মোড়ে অবস্থান ছিল। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ১১ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্ভুক্ত কল্যাণপুর, পাইকপাড়ায় এদিন যুবলীগের নেতাকর্মীরা শোডাউন করেছে। দুপুরে দেখা যায়, পিকআপে চড়ে বিভিন্ন স্লোগান দিতে দিতে এলাকায় ঘুরছেন নেতাকর্মীরা। ‘শেখ হাসিনার ভয় নাই, রাজপথ ছাড়ি নাই’, ‘কল্যাণপুরের মাটিতে যুবদলের ঠাঁই নাই’, ‘বিএনপির দালালেরা হুঁশিয়ার, সাবধান’-এসব স্লোগান দিতে শোনা যায়। ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মোল্লা সজলের নেতৃত্বে রাজধানীর ডেমরায় এদিন মিছিল হয়।

বুধবার সারা দিন মুখরিত ছিল ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়। ঢাকা দক্ষিণ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের উপস্থিতি অন্য যে কোনোদিনের চেয়ে অনেক বেশি ছিল। বুধবার সন্ধ্যায় ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন জানান, দলীয় কার্যালয়ের সামনে তখনও অন্তত ৪-৫ হাজার নেতাকর্মী উপস্থিত রয়েছেন। তিনি বলেন, প্রতিটি ওয়ার্ডের নেতাকর্মীদের সতর্ক পাহারায় থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বিএনপি কোথাও ভাঙচুরের চেষ্টা করলে জবাব দেওয়া হবে।

এদিকে বুধবার বিকাল ৪টার পর রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ের আশপাশে ছাত্রলীগের শতাধিক নেতাকর্মীকে মহড়া দিতে দেখা যায়। পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের একপর্যায়ে ছাত্রলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীদের ক্রিকেট খেলার স্টাম্পসহ বিভিন্ন ধরনের লাঠি হাতে মহড়া দিতে দেখা গেছে। এ সময় ছাত্রলীগ কর্মীরা বিএনপিকে রাজপথে প্রতিহত করার ঘোষণা দেন। বিকালে ফকিরাপুলের দিক থেকে আওয়ামী লীগ সমর্থকদের একটি মিছিল বের হয়। সন্ধ্যার পর জোনাকী সিনেমা হলের সামনে পল্টন, মতিঝিল ও শাহজাহানপুর থানা ছাত্রলীগ অবস্থান নিয়ে স্লোগান দিতে দেখা যায়।

পল্টন থানা আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তবা জামান পপি গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা সতর্ক অবস্থায় আছি। আমাদের ওয়ার্ড ইউনিটের নেতাকর্মীদের ইতোমধ্যে এ বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে বিএনপির গণসমাবেশ সামনে রেখে শুক্রবার বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ গেটে সমাবেশ করবে মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। সমাবেশের প্রস্তুতি এবং করণীয় ঠিক করতে বুধবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বৈঠক হয়েছে। অন্যদিকে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগও ১৩ ডিসেম্বর আগারগাঁওয়ে সমাবেশ করবে। এর প্রস্তুতির অংশ হিসাবে প্রতিদিনই বিভিন্ন ওয়ার্ডে সভা করছেন দলটির নেতারা। বুধবার সন্ধ্যায় মোহাম্মদপুর ও আদাবর থানা এবং আওতাধীন ওয়ার্ড নেতাকর্মীদের নিয়ে সভা করেছেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক এসএম মান্নান কচি।

আ.লীগের যৌথ সভা এবং ১৪ দলের সভা আজ : এদিকে আজ যৌথ সভা ডেকেছে আওয়ামী লীগ। সকাল সাড়ে ১০টায় ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলটির সম্পাদকমণ্ডলীর সঙ্গে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এবং ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়রের সঙ্গে এই যৌথসভা হবে। সভায় সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। অন্যদিকে আজ বেলা সাড়ে ১১টায় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমুর নিউ ইস্কাটনের বাসভবনে জোটের এক সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য এবং কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমু।


এই বিভাগের আরো খবর