নীলাকাশ টুডেঃ কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে জার্মানির পশ্চিমাঞ্চল ও প্রতিবেশী বেলজিয়ামে ভয়াবহ বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে অন্তত ১৮৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

আল জাজিরা জানিয়েছে, অর্ধ শতাব্দীরও বেশি সময়ের মধ্যে জার্মানিতে সবচেয়ে ভয়াবহ এ প্রাকৃতিক দুর্যোগে অন্তত ১৫৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে কোলন শহরের দক্ষিণে আভাইলা জেলায় প্রায় ৯০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে নদীর কূল ছাপিয়ে উপচে পড়া পানি ও হড়কা বানে বাড়িঘর ধসে যায়, রাস্তা ভেঙে পড়ে ও বৈদ্যুতিক খুঁটি উপড়ে পড়ে।

বন্যায় বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া বেশ কয়েকটি এলাকার কয়েকশ লোক এখনও নিখোঁজ রয়েছেন অথবা তাদের কাছে পৌঁছানো সম্ভব হচ্ছে না। কিছু এলাকার সঙ্গে টেলিযোগাযোগও বিচ্ছিন্ন হয়ে রয়েছে।

জার্মানির প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক-ভল্টার স্টাইনমায়ার শনিবার অন্যতম ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্য নথস রিনে-ভেসপালিয়ার এফস্ট্যাড শহর পরিদর্শন করেছেন। এখানে বন্যায় অন্তত ৪৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

চ্যান্সেরল অ্যাঙ্গেলা মার্কেল রোববার আরেক ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্য রিনেল্যান্ড পালাটিনাট পরিদর্শনে যাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। হড়কা বানে রাজ্যটির শোয়েজ গ্রাম প্রায় বিধ্বস্ত হয়ে গেছে।

পশ্চিম জার্মানির স্টাইনবাখথাইল বাঁধ ভেঙে পড়ার ঝুঁকিতে থাকায় নিম্নাঞ্চলের বাড়িগুলোতে থেকে প্রায় সাড়ে চার হাজার বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

কোলনের নিকটবর্তী বাসেনবার্গ শহরে একটি বাঁধ ভেঙে যাওয়ার পর শুক্রবার রাতে স্থানীয় প্রায় ৭০০ বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

ওই রাতের পর থেকে পানির স্তর নামতে শুরু করেছে বলে বাসেনবার্গ শহরের মেয়র জানিয়েছেন।

 

আরও পড়ুন

সাতক্ষীরায় অস্ত্র- গুলিসহ দুই ব্যক্তি গ্রেফতার

নীলাকাশ টুডেঃ ১৫ জুলাই রাত ৮ টার দিকে র‌্যাব-৬ (সাতক্ষীরা ক্যাম্প) এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, সাতক্ষীরা জেলার সদর থানাধীন ভোমরা পোর্ট এলাকায় কতিপয় ব্যক্তি মাদক দ্রব্য ক্রয় -বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে । উক্ত সংবাদ প্রাপ্ত হয়ে আভিযানিক দলটি ঘটনার সত্যতা যাচাই ও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্দেশ্যে সাতক্ষীরা জেলার সদর থানাধীন ভোমরা ইউনিয়নের বৈচনা গ্রামস্থ আশা মোড়ে জনৈক আব্দুল সবুরের সত্যতা ফার্নিচার এর সামনে পাকা রাস্তার উপর অভিযান পরিচালনা করলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে কৌশলে পালানোর চেষ্টাকালে সাতক্ষীরার ভোমরা ইউনিয়নের বৈচনা গ্রামের মোঃ আব্দুল গাফফারের দুই ছেলে মোঃ আব্দুল কাদের (২৫), মোঃ আব্দুল কাশেম (২৭) গ্রেফতার করে। এ সময় উপস্থিত সাক্ষিদের সামনে গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের হেফাজত হতে ০১টি দেশীয় তৈরী ওয়ান শুটার গান ও ০৬ রাউন্ড গুলি উদ্ধার পূর্বকজব্দ করে।

গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়কে সাতক্ষীরা জেলার সদর থানায় হস্তান্তর করতঃ তাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে।