নীলাকাশ টুডেঃ ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলায় আমগাছের ডালে ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে তুষার মিয়া (১৫) নামে এক স্কুলছাত্র। মৃত্যুর পর তার পকেট থেকে মাকে উদ্দেশ করে লেখা একটি চিরকুট উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার উপজেলার সহনাটী ইউনিয়নের ধোপাজাঙ্গালিয়া গ্রামের মাস্টার বাড়ির সামনে থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

তুষার মিয়া (১৫)পাছার গ্রামের আব্দুল মান্নানের (এন্ট্রাস মিয়া) পুত্র। সে পাছার উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ শ্রেণির ছাত্র ছিল।

গৌরীপুর থানার এসআই মো. সামছুল ইসলাম জানান, ধোপাজাঙ্গালিয়া গ্রামের মাস্টার বাড়ির সামনে আমগাছের ডালে দড়ির সঙ্গে ফাঁস নিয়ে সে আত্মহত্যা করেছে। মৃত্যুর পর তার পকেট থেকে মাকে উদ্দেশ করে লেখা একটি চিরকুট উদ্ধার করা হয়েছে।

চিরকুটে তার মাকে উদ্দেশ্য করে লিখেছে— ‘মা, আমি তোমার আদরের অতি কষ্ট করে বড় করানো খারাপ ছেলে। মামার ছেলে অনেক টাকাপয়সা রোজগার করে দেওয়ায় তুমি আমাকে বলতা দেখ তোর ছোট তবু তার মা-বাবাকে কামাই করে খাওয়ায়, আর তুই ঘরে বসে বসে সবকিছু খাস আর খাস। অথচ দেখ আম্মা আজ আমি খবর কিছুই নিতে পারলাম না। মা-বাবা আমার বেশি বেশি খাওয়ার জন্য শুধু সংসারে অশান্তি লেগেই থাকতো, মা আল্লাই এই একটা পেট দিসে, না সাগর দিসে, খালি খাই আর খাই করে। আম্মা আমি বুঝতে পারছিলাম না যে আমার জীবন এত ভারি হবে। তুমি আল্লার কাছে বলছিলা না যে কত মানুষ গাছে গাছে উঠে কত জায়গায় যায়, আল্লাই কী এরে দেখে না।