মোঃ নুরুজ্জামানঃ সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার নুরনগর মানবিক সেবা সংগঠন নামে একটি সেবা মুলক প্রতিষ্ঠান আশার আলো দেখাচ্ছিল নুরনগর বাসিকে। অল্প কিছু দিনের মধ্যে ব্যাপক আকারে সাড়াও পড়ছিল। অনেক অসহায় মানুষ উপকৃত হচ্ছিল। এরই মধ্যে সংগঠনটির ভিতরে সদস্য ও দায়িত্বরত কতৃপক্ষের সাথে মনোমালিন্যের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। তবে হটাৎ করে মনোমালিন্য এর এই বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে দুই পক্ষের দুইটি কমিটি দাবি করার পর থেকে। এদিকে ওই সংগঠনে এরই মধ্যে কয়েক লক্ষ টাকা অনুদান এসেছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে।

সাধারণ মানুষ চাচ্ছে সবাই মিলে মিশে এক হৃদয়ে সেবা দিতে এগিয়ে আসুক। তাই যদি না হয় তাহলে একই সংগঠনে দুই গ্রুপ না হয়ে দুই নামে আসুক। না হলে উক্ত সংগঠনে কেউ সাহায্য করবে না বলে সচেতন মহলের ধারণা। এছাড়া যারা এই সংগঠন করেছেন তাদের কাছে সাধারণ মানুষের প্রশ্ন সেবা দিতে এসেছেন না চেয়ার দখল করায় উর্দেশ্য নিয়ে এই সেবা মূলক সংগঠনে নাম লিখেয়েছেন? এর উত্তর হইতো এই মুর্হুতে কেউ দেবে না। তবে সাধারণত মানুষ আন্দাজ করেই ফেলেছে আসলেই কি হচ্ছে! তবে ওই সংগঠনকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক সরব হয়েছে দুই পক্ষ। কাঁদা ছোড়াছুড়ি চলছে। দুয়ে পক্ষ থেকে একে অপরের বিরুদ্ধে ভূয়া কমিটি গঠন হয়েছে বলে দাবি করছে। বিভ্রান্ত সৃষ্টি হওয়ার ফলে কমিটির গঠনের কোন পক্ষ আসল নকল চিনতে পারছে না নুরনগর বাসি! অপর দিকে সেবা দেওয়ার নামে লক্ষ লক্ষ টাকা চাঁদা আদায়ের পরে ওই টাকাগুলো সত্যিই কি সাহায্য করা হবে সাধারণ মানুষকে? না কি বিশেষ মহলের পেটে যাবে সর্বস্তরে চলছে সেই আলোচনা। এদিকে দুই পক্ষ কে শান্ত হওয়ার আহবান জানিয়েছেন নুরনগর ইউনিয়নের বিশিষ্ট জনেরা। তারা বলছে নিজেদের সমস্যা নিজেরাই সমাধান করা উচিত। এই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা যারা তাদের মনটাও ভালো লাগবে। সাধারণ মানুষও উপকৃত হবে।