সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:৩৮ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
সাতক্ষীরায় একজনের ফাঁসি শ্যামনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় অফিসার সহ আহত ৩ সাতক্ষীরায় ট্রাকের ধাক্কায় গৃহবধূ নিহত হিরো আলমকে তথ্যমন্ত্রীর অভিনন্দন তাদেরকে হেদায়েত কর, না হলে মাটিতে মিশিয়ে দাও! শ্যামনগরে হরিণের মাংস সহ ডিঙ্গি নৌকা আটক বেনাপোলে ফেনসিডিল সহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক ওয়াজ মাহফিলে দাওয়াত না পেয়ে আ.লীগের দু’পক্ষের বাড়িঘর ভাঙচুর হত্যা মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা গ্রাহকদের কাছ থেকে দাম বেশি নিয়ে ডাকাতি করছেন গ্যাস ব্যবসায়ীরা! স্ত্রীকে কুপ্রস্তাব, ব্যবসায়ীকে বাসায় ডেকে শেষ করলেন স্বামী ঢাকায় ‘ছোঁ পার্টির’ ১৬ জন গ্রেফতার স্বর্ণের দাম কমল ভরিতে যত বাংলাদেশ ও পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক ফেসবুক লাইভে এসে যা বললেন হিরো আলম

অবাধে চলছে পাখি শিকার

রিপোর্টারের নাম
আপডেট মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২২, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন

 

নীলাকাশ টুডেঃ বাগেরহাটের রামপালে পুঁটি মাছের পেটে বিষ দিয়ে অবাধে পাখি শিকার চলছে। উপজেলার রাজনগর, হুড়কা, গৌরম্ভা, উজুলকুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার মাঠে অল্প পানিতে পুঁটি ও চ্যালা মাছের পেটে সানফুরান জাতীয় বিষ ঢুকিয়ে রেখে দেওয়া হয়। বক, পানকৌড়ি, বুনোহাঁস, চিল, ডগমখুর, শামুকভাঙ্গাসহ বিভিন্ন ধরনের পাখি এসে এসব মাছ খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে দূরে অপেক্ষারত শিকারি এসে পাখি ধরে জবাই করেন। পরবর্তীতে তারা স্থানীয় বাজারে বিভিন্ন দামে এসব পাখি বিক্রি করেন।

রামপাল উপজেলার গৌরম্ভা ইউনিয়নের হামিদুর রহমান নামে এক ব্যক্তি জানান, এলাকায় কিছু মানুষ দীর্ঘ দিন ধরে বিষযুক্ত মাছ দিয়ে পাখি শিকার করে স্থানীয় বাজারে বিক্রি করছেন। দূরদূরান্ত থেকে এসে পাখি কিনে নেয় অনেকে। বিষ মেশানো এই পাখি খেয়ে অনেকে অসুস্থও হয়ে পড়েন। প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপের মাধ্যমে পাখি শিকার বন্ধের দাবি জানান তিনি।

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিকারি বলেন, ছোটবেলায় শখের বসে ধরলেও ৫ বছর ধরে ব্যবসার উদ্দেশ্যে পাখি শিকার করি। বছরের ৫ মাসের বেশি পাখি বিক্রির টাকায় সংসার চলে। আকারভেদে ২০০-১৬০০ টাকা পর্যন্ত একেকটি পাখি বিক্রি হয়। এই সময়টা ভালোই চলে আমাদের। তবে একটু গোপনে করতে হয়।

পাখি শিকার বৈধ কি না এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, অনেকেই তো করছে। আর পাখি তো হাজার হাজার আছে। এই আয়ে আমাদের সংসার চললে ক্ষতি কী?

রামপাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজিবুল আলম বলেন, পাখি শিকারের বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের সঙ্গে কথা বলে বিভিন্ন এলাকার শিকারিদের তালিকা করা হচ্ছে। খুব দ্রুত শিকারিদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করা হবে।


এই বিভাগের আরো খবর